তালাক সম্পর্কিত কিছু জরুরি কথা : যা না জানলেই নয়!

ওলামা-মাশায়েখও আলোচনা করে থাকেন যে, অতীব প্রয়োজন (যা শরীয়তে ওজর বলে গণ্য) ছাড়া স্বামীর জন্য যেমন তালাক দেওয়া জায়েয নয় তেমনি স্ত্রীর জন্যও তালাক চাওয়া দুরস্ত নয়। তালাকের পথ খোলা রাখা হয়েছে শুধু অতীব প্রয়োজনের ক্ষেত্রে ব্যবহারের জন্য। বর্তমান সমাজে, বিশেষ করে আমাদের এতদাঞ্চলে কোনো পরিবারে তালাকের ঘটনা যে কত ফাসাদ-বিশৃঙ্খলা, জুলুম-অত্যাচার এবং ঝগড়া-বিবাদের কারণ…

দিলের দশটি মৌলিক রোগ

লেখক: হযরত মাওলানা আব্দুল হাই পাহাড়পুরী মানুষের মধ্যে ফেরেশতাদের স্বভাবও আছে, পশুর স্বভাবও আছে। মানুষ যদি পশুর স্বভাবগুলো দূর করতে পারে, এগুলোর ইসলাহ করতে পারে তাহলে সে ফেরেশতাদের থেকেও আগে বেড়ে যায়। এক বুযুর্গ বলেন, كر خواهى كه شود دل تو جون آينه ده جيرز بيرون كن از درون سينه حرص وأمل وغضب وكذب وغيبة…

আমরা কেন দু’য়া করব?

সৃষ্টিকুলের প্রত্যেকেই অভাবী এবং আল্লাহর কাছে যা আছে তার মুখাপেক্ষী। আর আল্লাহ তা’আলা অভাব মুক্ত – তিনি কারো মুখাপেক্ষী নন। আল্লাহ তালা আমাদের উপর আবশ্যক করে দিয়েছেন, আমরা তাঁর কাছে দু’য়া করব। আল্লাহ বলেন, “তোমরা আমাকে ডাক আমি ডাকে সাড়া দিব। নিচ্ছয় যারা আমার ইবাদত করতে অহংকার প্রদর্শন করে; অচিরেই তারা লাঞ্ছিত অবস্থায় জাহান্নামে নিক্ষিপ্ত…

এত কিছুর পরও তওবার দরজা খোলা

দয়া – কে পেয়েছে? – যে সফল হয়েছে সফলকাম কে? – সাফল্য পেয়েছে কে? কে কামিয়াবি হয়েছে? যার নেকির পাল্লা হয়েছে ভারী যে অবলম্বন করেছে তাক্বওয়া .. যার নেকি হয়েছে অগণিত, তার কাঁধ হয়ে যাবে আদম (আ:) এর মতো চওড়া , সোন্দর্য হবে ইউসুফ (আ:) এর মতো, অন্তর পাবে আইউব (আ:) এর, ইসা (আ:) মতো…