দিলের দশটি মৌলিক রোগ

লেখক: হযরত মাওলানা আব্দুল হাই পাহাড়পুরী মানুষের মধ্যে ফেরেশতাদের স্বভাবও আছে, পশুর স্বভাবও আছে। মানুষ যদি পশুর স্বভাবগুলো দূর করতে পারে, এগুলোর ইসলাহ করতে পারে তাহলে সে ফেরেশতাদের থেকেও আগে বেড়ে যায়। এক বুযুর্গ বলেন, كر خواهى كه شود دل تو جون آينه ده جيرز بيرون كن از درون سينه حرص وأمل وغضب وكذب وغيبة…

কুরবানীর জরুরী বিষয় – যা আমাদের জানা দরকার

আল্লাহ তাআলা বলেন : ‘আল্লাহর নিকট পৌঁছায় না তাদের গোশত এবং রক্ত, বরং পৌঁছায় তোমাদের তাকওয়া। এভাবে তিনি এগুলোকে তোমাদের অধীন করে দিয়েছেন যাতে তোমরা আল্লাহর শ্রেষ্ঠত্ব ঘোষণা কর এজন্য যে, তিনি তোমাদের পথ-প্রদর্শন করেছেন ; সুতরাং আপনি সুসংবাদ দিন সৎকর্মপরায়ণদেরকে।'[সূরা হজ্ব : ৩৭] কুরবানীর অনুমোদনের ব্যাপারে আল্লাহ তা‌’আলা বলেন। – অতএব তোমরা রবের উদ্দেশ্যেই…

জুম’আর আদব

১। জুম’আর দিন গোসল করা। যাদের উপর জুম’আ ফরজ তাদের জন্য এ দিনে গোসল করাকে রাসুল (সাঃ) ওয়াজিব করেছেন(বুখারীঃ ৮৭৭, ৮৭৮, ৮৮০, ৮৯৭, ৮৯৮)। পরিচ্ছন্নতার অংশ হিসাবে সেদিন নখ ও চুল কাটা একটি ভাল কাজ।২। জুম’আর সালাতের জন্য সুগন্ধি ব্যবহার করা। (বুখারীঃ ৮৮০)৩। মিস্ওয়াক করা। (ইবনে মাজাহঃ ১০৯৮, বুখারীঃ৮৮৭, ইঃফাঃ৮৪৩)…৪। গায়ে তেল ব্যবহার করা। (বুখারীঃ৮৮৩)৫।…

যিলহজের প্রথম দশক : ফযীলত ও আমল

লেখক: আলী হাসান তৈয়ব সম্পাদনা : ড. আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া আল্লাহ তা‘আলা দয়ালু। তাই তিনি আপন বান্দাদের তওবার সুযোগ দিতে ভালোবাসেন। তিনি চান বান্দারা ইবাদতের মাধ্যমে তাঁর নৈকট্য লাভ করুক। এ উদ্দেশ্যে তিনি আমাদের জন্য বছরে কিছু বরকতময় ও কল্যাণবাহী দিন রেখেছেন- যাতে আমলের সওয়াব বহুগুণে বৃদ্ধি করা হয়। আমরা পরীক্ষার দিনগুলোতে সর্বোচ্চ চেষ্টা…

দু’য়া কবুল হওয়ার অপ্রকাশ্য কারণ সমূহ:

দু’য়া পূর্বে: খাটি ভাবে তওবা করা, কারো সম্পদ আত্মসাত করে থাকলে তা ফেরত দেয়া। পানাহার, পোষাক, বাসস্থান প্রভৃতি হালাল কামাই থেকে হওয়া। বেশী বেশী নেক কাজ করা, হারাম বিষয় থেকে দুরে থাকা, সন্দেহ ও খাহেশাতের বিষয় থেকে পুত-পবিত্র থাকা। দু’য়া অবস্থায়: অন্তর উপস্থিত রাখা আল্লাহর প্রতি দৃঢ় বিশ্বাস রাখা দু’য়া কবুল হওয়ার দৃঢ় আশা পোষন…

দুনিয়া এবং আখিরাতের কল্যাণ লাভের ইচ্ছায়

মানুষ যখন তার কর্মের মাধ্যমে দু’টি কল্যাণ লাভের ইচ্ছা পোষণ করবে, একটি দুনিয়ার কল্যাণ এবং অপরটি আখিরাতের কল্যাণ, তখন এই ক্ষেত্রে তার কোনো অপরাধ হবে না; কারণ, আল্লাহ বলেন: “… আর যে কেউ আল্লাহর তাকওয়া অবলম্বন করে, আল্লাহ তার জন্য (উত্তরণের) পথ বের করে দেবেন এবং তিনি তাকে তার ধারণাতীত উৎস থেকে রিযিক দান করবেন;…